মৃ’ত্যু ও সংক্রমণ কমেছে বিপর্যস্ত ভারতে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস রীতিমত তাণ্ডব চালাচ্ছে ভারতে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৪ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরও আড়াই লাখের বেশি মানুষ। গতকাল রেকর্ড সংখ্যক মানুষের করোনা পরীক্ষা করেছে ভারত।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৫৭ হাজার। একই সময়ে মারা গেছে ৪ হাজার ১৯৪ জন। অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ লাখ ৬৬ হাজার ২৮৫ জনের দেহে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। একই সময়ে করোনায় ৪ হাজার ২০৯ জনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট প্রায় ২ কোটি ৬২ লাখ লোকের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

প্রতিদিন বিপুল সংখ্যক নতুন রোগী শনাক্ত হলেও শনিবার (২২ মে) ভারতে কমে এসেছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগী কমেছে এক লাখেরও বেশি। সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশটিতে এখন মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৯ লাখ ২৩ হাজার ৪০০ জন। গত ২৮ এপ্রিলের পর এই প্রথমবারের মতো দেশটিতে সক্রিয় রোগী ৩০ লাখের নিচে নামল।

দৈনিক আক্রান্তের থেকে বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে ওঠাতেই কমছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা। এক সময় তা ছিল ৩৭ লাখেরও বেশি। গত দু’সপ্তাহে কমতে কমতে ২৯ লাখে নেমে এসেছে।

ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসতেই বদলেছে পরিস্থিতি। দিল্লি, বিহার, ঝাড়খণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশে সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এসব রাজ্যে শুরু থেকেই সংক্রমণ বেশি ছিল। এমনকি মোট সংক্রমণের অধিকাংশই এসব রাজ্যে।

তবে কর্নাটকের পরিস্থিতি এখনও লাগামছাড়া। এছাড়া গত কয়েকদিনে ভারতের মেঘালয়, ত্রিপুরা, মণিপুর, নাগাল্যান্ড, সিকিম, মিজোরামের মতো রাজ্যেও সংক্রমণ বেড়েছে।

সূত্র: এএনআই, এনডিটিভি।

মোঃ মাহফুজ মিয়া

মোঃ মাহফুজ মিয়া বাংলাদেশের অন্যতম শিক্ষা বিষয়ক ওয়েবসাইট পড়ালেখা ২৪.কম এর প্রতিষ্ঠাতা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Back to top button