বিক্ষোভ কাশ্মিরে দুটি বিয়ে নিয়ে।

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আগে ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে দুই মুসলিম পুরুষের সঙ্গে দুই শিখ নারীর বিয়ে নিয়ে বিক্ষোভ চলছে। শিখ সম্প্রদায়ের দাবি, জোর করে ধর্মান্তরের মাধ্যমে এই বিয়ে হয়েছে। তবে পুলিশ ও ওই পুরুষদের পরিবার এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে। অবশ্য এতেও বিক্ষোভ থামছে না কাশ্মিরে।

পরিবারের সদস্য ও পুলিশ জানিয়েছে, ১৯ বছরের মানমিট কাউর ও ২৯ বছরের শহিদ নাজির কাশ্মিরের প্রধান শহর শ্রীনগরের বাসিন্দা। গত ২১ জুন তারা দুজন বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। পরে কাউরের পরিবারের সদস্যরা অপহরণের মামলা করে। ২৪ জুন দুজন বাড়ি ফিরলে তাদের থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। দুদিন পর পুলিশের কাছে দেওয়া বিবৃতিতে মানমিট দাবি করেন, তাকে অপহরণ করা হয়নি।

তিনি ইসলামি পদ্ধতিতে বিয়ে করেছেন এবং নিজের নাম পরিবর্তন করে জয়া রেখেছেন। আদালতেও একই সাক্ষ্য দিয়েছিলেন তিনি। পরে আদালত তাকে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করে। ২৭ জুন কয়েকশ শিখ বিক্ষোভ করে। তাদের অভিযোগ,  জোর করে ধর্মান্তরিত করা হয়েছিল শিখ তরুণীকে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকশ বছর ধরে পাশাপাশি বাস করে আসা শিখ ও মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

টেলিফোনে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে তিনি বলেন, ‘আমি ২০১২ সালে ইসলাম গ্রহণ করি, সেটা আমার প্রেমিককে বিয়ে করার দুই বছর আগের ঘটনা। আমাদের দুজনের ইচ্ছাতেই এটা হয়েছে। কেউ আমাদের জোর করেনি। এটা আমার সিদ্ধান্ত ছিল, কারণ ভারতীয় সংবিধান আমাকে জীবনসঙ্গী বেছে নেওয়ার অধিকার দিয়েছে।’

রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতোকোত্তর দানমিত গত ৬ জুন বাড়ি ছেড়ে চলে যান। যাওয়ার আগে তিনি পরিবারের সদস্যদের বলে যান, তাকে যেন খোঁজা না হয়। তিনি তার স্বামীর সঙ্গে বাস করতে যাচ্ছেন।

কিছু শিখ নেতা এমনও দাবি করছেন যে, বন্দুক ঠেকিয়ে শিখ নারীদের ধর্মান্তর করে বিয়ে করছে মুসলমানরা। অবশ্য এর পক্ষে কোনো প্রমাণ তারা হাজির করতে পারেননি। এরপরও তারা ধর্মান্তর বিরোধী আইন চাইছেন এবং আন্তধর্মীয় বিয়ে বন্ধের দাবি জানাচ্ছেন। এই দাবি নিয়ে সুদূর দিল্লি থেকে কাশ্মিরে ছুটে গেছেন শিখদের রাজনৈতিক দল শিরোমনি আকালি দলের নেতারা, যাদের মধ্যে দিল্লির সাবেক বিধায়ক মনজিনদার সিং সিরসাও রয়েছেন।

Mahfuz Mia

মাহফুজ মিয়া বাংলাদেশের অন্যতম শিক্ষা বিষয়ক ওয়েবসাইট পড়ালেখা ২৪.কম এর প্রতিষ্ঠাতা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Back to top button